Dhaka Reader
Nationwide Bangla News Portal

- Advertisement -

প্রকাশ্যে দুই শিক্ষার্থীকে পেটালো কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা

156

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি:
লক্ষ্মীপুরে কিশোর গ্যাংয়ের প্রধান তানজিদ তুষার ও তার বখাটে বন্ধুরা একটি পুকুর ঘাটলা বসে ধূমপান করছে। বিষয়টি দেখে ফেলায় কলেজ শিক্ষার্থী সুজন ও তার বন্ধু শাওনকে ধাওয়া করে তারা প্রকাশ্যে কাঠের টুকরো দিয়ে বেদম মারধর করে।

বুধবার (১২ জুলাই) দুপুর ২টার দিকে লক্ষ্মীপুর টাউন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে শতশত শিক্ষার্থীর সামনে এ হামলার শিকার হয় কলেজ ছাত্র সুজন ও শাওন।

শিক্ষার্থী সুজন দালাল বাজার ডিগ্রী কলেজের একাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থী ও পৌরসভার (১২নং ওয়ার্ড) মাষ্টার কলোনি এলাকার রং মিস্ত্রি সেলিমের ছোট ছেলে। অপর শিক্ষার্থী শাওনের সম্পন্ন পরিচয় জানা যায়নি। তবে সুজন ও শাওনের মধ্যে ভালো বন্ধুত্ব সম্পর্ক রয়েছে।

হামলাকারীরা হচ্ছে- কিশোর গ্যাংয়ের প্রধান তানজিদ তুষার তার সহযোগী রাহিম, হাসিব গাজী ও সাইমুনসহ ১০ থেকে ১৫ জন। তারা সবাই পৌরসভার লামচরী, সমসেরাবাদ, কলেজ রোড় ও বাইশ মারা এলাকার বাসিন্দা। তারা সবসময় কলেজ রোড়, সামাদ স্কুল ও পিটিআই মোড়সহ বিভিন্ন পয়েন্টে আড্ডা দেয়। প্রায় তারা কারণে-অকারণে মারামারিতে জড়িয়ে পড়ে।

নাম-প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি জানিয়েছেন, হামলাকারী সবাই জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন ভূঁইয়ার অনুসারী। ঘটনার কয়েক মিনিট পর শাহাদাৎ ভূঁইয়া একটি মোটরসাইকেল যোগে পিটিআই মোড়ে আসেন। ওইসময় তার সঙ্গে ছাত্রলীগ সুদীপ্ত পাল কে দেখা গেছে।

জানতে চাইলে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন ভূঁইয়া জানান, কি হয়েছে বিষয়টি তার জানা নেই। তবে তিনি সদর থানার পুলিশকে জানিয়েছেন, সামাদ স্কুলের সামনে মারামারি হয়েছে পুলিশ পাঠান।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শিক্ষার্থী সুজন বলেন, দুপুর পৌনে ২টার দিকে সুজন ও তার বন্ধু শাওন আদর্শ সামাদ বিদ্যালয় মাঠের পশ্চিম পাশ দিয়ে হাঁটতে যান। ওইসময় দেখেন তানজিদ তুষার ও তার বন্ধুরা পুকুর ঘাটলা বসে ধূমপান করছে। বিষয়টি দেখে ফেলায় তানজিদ তুষার কলেজছাত্র সুজন ও শাওনের ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন। একপর্যায়ে তুষার ও তার বন্ধুরা সুজন-শাওনকে ধাওয়া করেন। দৌঁড়িয়ে লক্ষ্মীপুর টাউন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সামনে এগিয়ে সুজন ও শাওনকে কাঠের টুকরো দিয়ে বেদম মারধর করে। এতে সুজন মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। আহত অবস্থায় সুজনকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে পাঠান স্থানীয়রা।

লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক জয়নাল আবেদীন জানান, কলেজছাত্র সুজনের চোখের নিচে ও পিঠে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

লক্ষ্মীপুর শহর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ জহিরুল আলম মারামারি বিষয় নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে আমরা সঙ্গে-সঙ্গে পুলিশ পাঠিয়েছি। হামলাকারীদের চিহ্নিত করতে পুলিশ কাজ করছে। ভুক্তভোগী কলেজছাত্র এখন পর্যন্ত লিখিত অভিযোগ দেয়নি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.