Dhaka Reader
Nationwide Bangla News Portal

- Advertisement -

নোয়াখালীতে প্রবাসীর স্ত্রীকে হয়রানি এবং অর্থ আদায়, অবশেষে গ্রেফতার

13

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে মোবাইল ফোন মেরামত করে দেয়ার নাম করে এক প্রবাসীর স্ত্রীকে ভয় দেখিয়ে অর্থ আদায় এবং অনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের প্রস্তাব দিয়েছে এক মোবাইল মেকানিক, বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম এন্ড অপস) মোহাম্মদ ইব্রাহীম এই তথ্য নিশ্চিত করেন। অভিযুক্ত নুরুল ইসলাম(৪০) সেনবাগ থানার আট নং বীজবাগ ইউনিয়নের চার নং ওয়ার্ডের শ্যামেরগাও মতিন আমিন বাড়ির আবদুস সাত্তার ভুঁইয়ার ছেলে।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, অভিযোগকারী মো. আব্দুর রহিমের ছোট বোন ভিকটিম শিল্পী (৩২) (ছদ্মনাম) একজন গৃহিণী, তার স্বামী আমেরিকা প্রবাসী। শিল্পীর মোবাইল সেটের সমস্যা হওয়ায় গত ২২/০১/২০২২ইং তারিখ সকাল অনুমান ১১.০০ ঘটিকার সময় ভিকটিম তার মোবাইল সেটটি ঠিক করানোর জন্য কোম্পানীগঞ্জ থানাধীন বসুরহাট পৌরসভাস্থ বসুরহাট আর.ডি শপিং মলে যান, তখন অভিযুক্ত নুরুল ইসলাম নিজেকে মোবাইল মেকানিক পরিচয় দিয়ে ভিকটিমের মোবাইল ফোন ঠিক করে দেয়ার কথা বলে অসৎ উদ্দেশ্যে ভিকটিমের মোবাইল নাম্বার সংগ্রহ করে এবং ফোনের গ্যালারি হতে ভিকটিমের ব্যক্তিগত ছবি তার অজ্ঞাতসারে কৌশলে অভিযুক্ত নুরুল ইসলাম তার মোবাইলে ট্রান্সফার করে নিয়ে যায়।

পরে নুরুল ইসলাম ভিকটিমের ব্যক্তিগত ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করার ভয় দেখিয়ে ০৫ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে। ওই গৃহিণী সামাজিক ভাবে মান সম্মান হানির ভয়ে ও তার সংসার টিকানোর লক্ষ্যে উক্ত নুরুল ইসলামকে বিভিন্ন তারিখ ও সময়ে সর্বমোট দুই লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা প্রদান করে। কিন্তু নুরুল ইসলাম সন্তুষ্ট না হয়ে বাকী টাকা দেয়ার জন্য গৃহিণীকে চাপ দিতে থাকে এবং টাকা না দিলে অনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের প্রস্তাব দেয়। তার প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় নুরুল ইসলাম ভিকটিমের ছবি ও নাম ব্যবহার করে টিকটক আইডি খুলে উক্ত আইডিতে ভিকটিমের ব্যক্তিগত ছবি প্রচার করে। বিষয়টি ভিকটিমের নজরে আসলে তিনি তার ভাইসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের জানালে তার ভাই মো. আব্দুর রহিম উক্ত বিষয়ে নোয়াখালী সুপারকে লিখিত অভিযোগ করেন, পরে জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) অভিযান পরিচালনা করে অভিযুক্ত নুরুল ইসলামকে গ্রেফতার করেন।

অভিযান পরিচালনাকারী এস আই (নিরস্ত্র) মোহাম্মদ আক্তার হোসেন গ্রেফতারকৃত নুরুল ইসলামের কাছে থেকে ভিকটিমের ব্যক্তিগত ছবি এবং ভিকটিমের নাম ও ছবি ব্যবহার করা টিকটিক আইডি সংরক্ষিত মোবাইল ফোনটি জব্দ করেন। এ নিয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানায় মামলা রুজু প্রক্রিয়াধীন আছে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.