Dhaka Reader
Nationwide Bangla News Portal

- Advertisement -

ডেঙ্গু প্রতিরোধে মসিকের স্কুল ভিত্তিক সচেতনতা ক্যাম্পেইন

160

ময়মনসিংহ সংবাদদাতা:
একটি ডেঙ্গু সচেতন প্রজন্ম গড়ে তুলতে এবং শিশুদের মাধ্যমে পরিবারে সচেতনতার বার্তা পৌঁছে দিতে আজ থেকে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন (মসিক) এর উদ্যোগে স্কুল ভিত্তিক সচেতনতা ক্যাম্পেইন শুরু হয়েছে। বুধবার সকালে নগরীর প্রিমিয়ার আইডিয়াল হাই স্কুল ও ময়মনসিংহ জিলা স্কুল মিলনায়তনে সচেতনতা ক্যাম্পেইন পরিচালনার মাধ্যমে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন মসিক মেয়র মোঃ ইকরামুল হক টিটু।

ময়মনসিংহ জিলা স্কুল মিলনায়তনে আয়োজিত ক্যাম্পেইনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র বলেন, ডেঙ্গু প্রতিরোধের উপায় ও ডেঙ্গু হলে করণীয় সম্পর্কে শিশুদের সচেতন করা হলে একটি ডেঙ্গু সচেতন সমাজ গড়ে উঠবে। এ লক্ষ্যেই আমরা স্কুলে স্কুলে সচেতনতা ক্যাম্পেইন শুরু করেছি। এ শিশুরা সচেতনতার দূত হয়ে ডেঙ্গু সম্পর্কে নিজের পরিবারকে আরও সচেতনতা করবে।

এ সময় মেয়র ডেঙ্গু প্রতিরোধে নিজ নিজ বাসা বাড়ি আঙ্গিনা পরিস্কার রাখার জন্য এবং বাসার কোথাও পানি জমে থাকলে দায়িত্ব নিয়ে তা অপসারণের এবং পরিবারের সবাইকে উদ্বুদ্ধ করার জন্য উপস্থিত শিশুদের আহবান জানান।

- Advertisement -

এছাড়াও ডেঙ্গু প্রতিরোধে এ কার্যক্রমের সাথে মশক নিধনে ক্রাশ প্রোগ্রামেরও উদ্বোধন করেন মেয়র। এর আওতায় মসিকের ৩৩ টি ওয়ার্ডে প্রতিটি হটস্পটকে বিশেষ নজরে রেখে পরিকল্পনা মোতাবেক এডাল্টিসাইড ও লার্ভিসাইড প্রয়োগ করা হবে।

মেয়র জানান, যদিও ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন এলাকায় এখনও ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব দেখা যায় নি তারপরও দেশে ডেঙ্গুর ঊর্ধ্বমুখী পরিস্থিতি যতদিন বিরাজ করবে ততদিন স্কুল ভিত্তিক সচেতনতা ক্যাম্পেইন ও ক্রাশ প্রোগ্রাম পরিচালনা করা হবে।

উল্লেখ্য, ডেঙ্গু প্রতিরোধে এডাল্টিসাইড ও লার্ভিসাইড প্রয়োগের পাশাপাশি সচেতনতা বৃদ্ধিতে লক্ষ্যে মাইকিং, লিফলেট বিতরণ, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে। এছাড়া ডেঙ্গু লার্ভা সনাক্তকরণেও অভিযান পরিচালনা করছে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন। কোন ভবন বা প্রতিষ্ঠানে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া গেলে তা ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জরিমানা করবে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন।

ক্যাম্পেইন সভাপতিত্ব করেন মসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ ইউসুফ আলী। এ সময় ওয়ার্ড কাউন্সিল নিয়াজ মোর্শেদ, শীতল সরকার, সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর শাম্মী আক্তার মিতু ও হামিদা পারভীন, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা এইচ কে দেবনাথ, মেডিকেল অফিসার ডাঃ আসামাউল ইসলাম রুপা, জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ডাঃ ফাহমিদা ইসলাম লিমা, বিদ্যালয় সমূহের প্রধান শিক্ষক সহ অন্যান্য শিক্ষকবৃন্দ, ছাত্রছাত্রীবৃন্দ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.