Dhaka Reader
Nationwide Bangla News Portal

- Advertisement -

কোমায় চার বছর, জেগে ওঠে ‘করোনার’ নাম শুনে অবাক তিনি

132

ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনায় ২০১৯ সালে কোমায় চলে যান সৌদি আরবের নাগরিক ফারিস আবু বাতিন। দীর্ঘ চার বছর হাসপাতালের বিছানায় অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকার পর-২০২৩ সালের মার্চ মাসে জেগে ওঠেন তিনি।

এই চার বছরের মধ্যে বিশ্বে ঘটে গেছে অনেক ঘটনা। যার মধ্যে অন্যতম ছিল করোনা মহামারি। তবে কোমায় থাকায় এর কিছুই জানতে পারেননি তিনি।

ফারিস আবু বাতিন সংবাদমাধ্যম আল আরাবিয়ার সঙ্গে জানিয়েছেন, জেগে ওঠার পর যখন মহামারি সম্পর্কে জানতে পারেন, তখন বেশ অবাক হয়েছিলেন তিনি।

- Advertisement -

এ ব্যাপারে বাতিন বলেছেন, ‘আমি সমাজে অনেক পরিবর্তন লক্ষ্য করি। আমি দেখতে পাই নগরে অনেক পরিবর্তন হয়েছে।’

করোনার মহামারি খবর তার জন্য অনেক বড় চমক ছিল জানিয়ে বাতিন বলেছেন, ‘অনেক ঘটনা ঘটে যাওয়ার পর জেগে ওঠে— আমি অবাক হয়েছিলাম, যার মধ্যে অন্যতম ছিল কোভিড-১৯ মহামারি। অনেকে আমাকে কোভিড-১৯ বা করোনা মহামারি সম্পর্কে বলে। আমি এ সম্পর্কে প্রথমে বুঝতে পারিনি, পরে ইউটিউব থেকে মহামারি সম্পর্কে জানি।’

এদিকে ২০১৯ সালে দুই ভাইয়ের সঙ্গে গাড়িতে করে যাচ্ছিলেন বাতিন। ওই সময় একটি উটকে তাদের গাড়ি ধাক্কা দেয়। ওই দুর্ঘটনায় তার দুই ভাই নিহত হলেও বাতিন বেঁচে যান। তবে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর কোমায় চলে যান তিনি।

বাতিন জানিয়েছেন, তিনি কোমা থেকে জেগে ওঠার পর প্রথমই একটি কোরআন শরীফ চেয়েছিলেন। তিনি আরও জানিয়েছেন, কোমা থেকে ওঠার পর জানতে পারেন তার স্ত্রী একটি কাজ পেয়েছিলেন এবং সন্তানদের একাই বড় করে তুলছিলেন; এ বিষয়টি তার জন্য বেশ আনন্দের ছিল।

সূত্র: গালফ নিউজ

Leave A Reply

Your email address will not be published.